বাঘের দৌরাত্ম্য ছিল কলকাতাতেই,তোলপাড় সেই আমলের খবরের কাগজে

বাঘের দৌরাত্ম্য ছিল কলকাতাতেই,তোলপাড় সেই আমলের খবরের কাগজে

বাঘ | বাঘ বলতেই আমাদের মাথায় আসে সুন্দরবনের রয়েল বেঙ্গল টাইগারের কথা | কিন্তু জানেন কি একসময় বাঘ ছিল কলকাতাতেও | কলকাতা একসময় ছিল সুন্দরবনের মধ্যেই | এর অনেক প্রমাণও পাওয়া যায় | প্রায় দেড়শো বছর আগে শিয়ালদহ অঞ্চলে এক পুকুর খনন করার সময় প্রায় তিরিশ ফুট নিচে থেকে অসংখ্য সুন্দরী গাছের গুঁড়ি পাওয়া যায় |

কলকাতায় বাঘের কথা শুনেছেন এবং সেই বন দেখেছেন এমন বহু লোক সেই যুগে ছিল | এমনকি সেইসময় পত্র পত্রিকা,সংবাদপত্রে কলকাতায় ব্যাঘ্রভীতির কথা প্রকাশিত হয়েছিল | ১৮২৫ সালের ৯ জুলাই সমাচার দর্পণে ব্যাঘ্রভীতির খবর প্রকাশিত হয়েছিল | এরপর ১৮৪৯ সালের ১৯ এপ্রিল সংবাদ প্রভাকর কাগজে কলকাতায় বাঘের দৌরাত্ম্যের খবর পাওয়া যায় | সেখানে প্রকাশিত হয়েছিল কলকাতার শিমুলিয়ায় নেকড়ে বাঘ হানা দিয়েছে | সেই বাঘের আক্রমণে প্রাণ যায় সাত মাস বয়সের এক কন্যাসন্তানের | সেই বাঘটিই আবার পরের দিন ওই অঞ্চলে হানা দেয় | উঠিয়ে নিয়ে যায় দেড় বছরের এক শিশুপুত্রকে | কিন্তু সেই বাঘকে ধরতে পারেনি কেউই |

আরো পড়ুন:  স্পষ্টবাদিতা থেকে এসেছিল তাঁর হুতোম প্যাঁচার নকশা লেখার অনুপ্রেরণা

১৮১৯ সালের সমাচার দর্পণে প্রকাশিত এক খবর থেকে জানা যায় গৌরীপুর অঞ্চলে এক বাঘের আক্রমণে প্রাণ গেছে এক মহিলার | এরপর সেই বাঘটি পাশের এক বাড়ির ঘরে ঢুকে পড়ে | সেই বাড়ির লোকজন কোনওভাবে বাঘটিকে একটি ঘরের মধ্যে আটকে ফেলে | এরপর পুলিশে খবর দেওয়া হলে স্থানীয় প্রশাসনের সাহায্যে তারা হত্যা করে বাঘটিকে |

আরো পড়ুন:  কালিতলায় জল জমেছে,গামবুট পড়ে ড্রেনে নামলেন কলকাতা কর্পোরেশনের চিফ এক্সিকিউটিভ অফিসার সুভাষচন্দ্র বসু

গঙ্গাসাগরের বন কেটে ব্রিটিশরা কলকাতায় বসতি স্থাপন করে | আর সেই সূত্রেই কলকাতায় তখন ছিল বাঘের আনাগোনা |

তথ্য : কলির শহর কলকাতা (হরিপদ ভৌমিক)

Avik mondal

Avik mondal

করোনাকে না করো

ভাইরাসের কবলে আজ সারা বিশ্ব,গৃহবন্দী বিশ্ববাসী।বন্ধ দ্বার খুলতে তাই নিজেদের সুরক্ষিত রাখুন,হাত ধুয়ে নেমে পড়ুন এই ভাইরাস দমনে।