প্রায় দুশো বছরের প্রাচীন ‘মাখনলাল দাস এন্ড সন্স’ – এ আজও পাওয়া যায় দু টাকা দামের সন্দেশ

প্রায় দুশো বছরের প্রাচীন ‘মাখনলাল দাস এন্ড সন্স’ – এ আজও পাওয়া যায় দু টাকা দামের সন্দেশ

মিষ্টির সাথে বাঙালির সম্পর্ক চিরন্তন | বাঙালি মিষ্টি ভালোবাসে | বাংলার মিষ্টি নিয়ে রয়েছে ঐতিহ্যের ইতিহাস | চিৎপুর রোড এর উপরেই রয়েছে কলকাতার সবচেয়ে পুরনো বাজার | নাম নতুন বাজার | আর এই বাজারেই রয়েছে এক মিষ্টির দোকান | নাম ‘মাখনলাল দাস এন্ড সন্স’ | দোকানের বয়স প্রায় দুশো | কিন্তু এত বছর অতিক্রম করেও ‘মাখনলাল দাস এন্ড সন্স’ ধরে রেখেছে তাদের সুনাম |

 

 

‘মাখনলাল দাস এন্ড সন্স’ এর সন্দেশ শুধু বাংলার অন্যতম সেরাই নয়, বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তেও এই দোকানের সন্দেশের সুখ্যাতি রয়েছে | আজ থেকে প্রায় দুশো বছর আগের কথা | ভারতে তখন ব্রিটিশ রাজ। বর্ধমানের খণ্ডঘোষ থানার দুবরাজহাট গ্রামের মাধবচন্দ্র দাস কলকাতায় এসে বিক্রি করতেন কেক,সন্দেশ ইত্যাদি | বেশ কিছু বছর পর দোকানের নাম রাখলেন নিজের ছেলে মাখনলাল দাসের নামে | সেই শুরু | ধীরে ধীরে বড় হয়ে ওঠে দোকান | তবে এই দোকানের বিশেষত্ব হল এই দোকানে শুধুমাত্র সন্দেশ পাওয়া যায়, কোনও রসের মিষ্টি পাওয়া যায় না | দোকান আগেও যেমন ছিল এখনও সেইরকমই আছে, বেশি কিছু পরিবর্তন হয়নি | দোকানে গেলে আজও দেখা যায় পুরোনো বিরাট বড় পাত্রে রাখা আছে হরেক রকমের সন্দেশ |

আরো পড়ুন:  একটা মাদুলি ও পুরোনো কোলকাতার এক ঘৃণ্য প্রথার গল্প

 

 

কিভাবে এই দোকান ধরে রেখেছে গুণমান ?
এই দোকানের সন্দেশে ব্যবহৃত ছানা, খাঁটি দুধ থেকে নিজেরাই তৈরী করে মাখনলাল দাস এন্ড সন্স | ছানা তৈরিতে দুধে কোনও কেমিক্যাল ব্যবহৃত হয় না | আর এর ফলেই বিশুদ্ধ ছানা থেকে তৈরী সন্দেশ হয় গুণমানে সেরা | মিষ্টিতেও কোনও কেমিক্যাল ব্যবহার করা হয় না | কলকাতার মধ্যে একমাত্র এই দোকানে এখনও পাওয়া যায় দু টাকা দামের সন্দেশ |

আরো পড়ুন:  নেতাজীর জন্মদিনে সকলকে বিনা পয়সায় ভোজ খাওয়ায় 'স্বাধীন ভারত হিন্দু হোটেল'

তবে যুগের সঙ্গে তাল মিলিয়ে মাখনলাল দাস অ্যান্ড সন্স নজর দিয়েছে ফিউশন সন্দেশের দিকেও। চকোলেট সন্দেশ প্রথম তৈরী করে ‘মাখনলাল দাস এন্ড সন্স’ | এর পাশাপাশি পেস্তা সন্দেশ, কেশরের সন্দেশ , বাটারস্কচ সন্দেশ, স্ট্রবেরি সন্দেশ, ম্যাংগো সন্দেশ বর্তমানে তৈরী করছে তারা | বেশ কিছু মাস আগে দরবেশ-ও বানিয়েছে মাখনলাল দাস এন্ড সন্স | লেক ভিউ, নিউ আলিপুর,চেতলাতেও নতুন আউটলেট খুলেছে মাখনলাল দাস এন্ড সন্স | সেই নতুন আউটলেটে রসের মিষ্টিও আনতে চলেছে তারা | কে বলে বাঙালি ব্যবসা জানে না ?

আরো পড়ুন:  পঞ্চাশ বছরেরও বেশি সময় ধরে কলকাতার বনেদি ঘড়িগুলি বাঁচিয়ে রেখেছেন 'ঘড়িবাবু'

-অভীক মণ্ডল
তথ্য : হ্যাংলা

Avik mondal

Avik mondal

Leave a Reply

করোনাকে না করো

ভাইরাসের কবলে আজ সারা বিশ্ব,গৃহবন্দী বিশ্ববাসী।বন্ধ দ্বার খুলতে তাই নিজেদের সুরক্ষিত রাখুন,হাত ধুয়ে নেমে পড়ুন এই ভাইরাস দমনে।