আন্টার্কটিকায় পাড়ি দেওয়া প্রথম ভারতীয় নারী বঙ্গকন্যা সুদীপ্তা সেনগুপ্ত

আন্টার্কটিকায় পাড়ি দেওয়া প্রথম ভারতীয় নারী বঙ্গকন্যা সুদীপ্তা সেনগুপ্ত

আজ আন্তর্জাতিক নারী দিবস। আর তাই আজ শুনব এমন এক মহিলার কথা যাদের জন্য এই দিনটির গুরুত্ব বহু মাত্রায় বেড়ে যায়। তিনি সুদীপ্তা সেনগুপ্ত। যে সময়টাতে মেয়েদের বাড়ির বাইরে বেরোনো কোনো অপরাধের থেকে কম ছিল না,সেই সময় তিনি পা রেখেছিলেন দক্ষিণতম মহাদেশ আন্টার্কটিকায়।আন্টার্কটিকায় পাড়ি দেওয়া প্রথম ভারতীয় নারী ছিলেন তিনি |

ছোটোবেলা থেকেই পাহাড়ের চূড়ার মতোই উঁচু ছিল তাঁর লক্ষ্য,তাই সেই চূড়া যেন তাঁকে ডাকত | সুদীপ্তা সেনগুপ্ত জন্মগ্রহণ করেন কলকাতাতেই | বাবা ছিলেন আবহবিদ | বাবার চাকরির কারণে ছোটোবেলা নেপালে কাটালেও পরবর্তীতে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ভূবিদ্যা নিয়ে পড়াশোনা করেন তিনি। শুরু থেকেই পঢড়াশোনায় আগ্রহী সুদীপ্তা এরপর চড়তে থাকেন একের পর এক সাফল্যের সিঁড়ি। স্নাতক ও স্নাতকোত্তর পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়ে পাড়ি দেন লন্ডন ইম্পিরিয়াল কলেজ গবেষণার কাজে। ১৯৭২সালে ডক্টরেট ডিগ্রিও লাভ করেন।

আরো পড়ুন:  বীজগণিতকে ইউরোপীয় প্রভাব থেকে মুক্ত করে ভারতীয় শিক্ষার্থীদের জন্যে সহজবোধ্য করে তুলেছিলেন কে.পি.বসু

ছোটোবেলা থেকেই পাহাড় যেন তাঁকে ডাকে। যেন হাতছানি দিয়ে নিজের কাছে টানতে চাই। স্নাতকোত্তর পড়ার সময়ে সুদীপ্তা সেনগুপ্ত হিমালয়ান পর্বতারোহণ সংস্থান ও নেহরু ইনস্টিটিউট অব মাউন্টেনিয়ারিং নামে ভারতের দু’টি সেরা পর্বতারোহণ প্রতিষ্ঠান থেকে প্রশিক্ষণ নিয়েছিলেন । পিএইচডি শুরু করার আগে হিমাচল প্রদেশের একটি অনামি শৃঙ্গ জয় করেন তিনি। সেই পর্বতশৃঙ্গের নাম রাখা হয় ললনা।

আরো পড়ুন:  লকডাউনের অবসরে নতুন আবিষ্কার,অভিনব ল্যান্ডমাইন ডিটেক্টর বানিয়ে চমক আসানসোল ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের পাঁচ পড়ুয়ার

ভারতের তৃতীয় অভিযাত্রী দলের সদস্য রূপে পাড়ি দেন আন্টার্কটিকা | তিনি ও সমুদ্র জীববিজ্ঞানী অদিতি পন্থ ভারতের প্রথম মহিলা হিসেবে এই অভিযানে অংশগ্রহণ করেন। গোয়া থেকে তাঁদের জাহাজ ছেড়েছিল ১৯৮৩ সালের ৩ ডিসেম্বর। জাহাজটি ছিল ফিনল্যান্ডের, নাম ‘ফিনপোলারিস’। আর ১৯৮৪-র ২৯ মার্চ ফিরে আসেন ভারতে। আন্টার্কটিকায় ভারতের প্রথম রিসার্চ স্টেশন ‘দক্ষিণ গঙ্গোত্রী’ তৈরি হয়েছিল সেবারই।এই সময় শির্মাকার পাহাড়ে সুদীপ্তা ভূতাত্ত্বিক গবেষণা চালান | ১৯৮৯ খ্রিস্টাব্দে তিনি নবম ভারতীয় অ্যান্টার্কটিকা অভিযানের সদস্য হিসেবে দ্বিতীয়বার অ্যান্টার্কটিকা অভিযানে অংশগ্রহণ করেন | সুইডিশ জাহাজ ‘থুলেলান্ড’-এ চড়ে যাত্রা শুরু করেন ১৯৮৯-এর ৩০ নভেম্বর। ফিরে আসেন পরের বছর ২৭ মার্চ।

আরো পড়ুন:  যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের এই প্রাক্তনী প্রথম ভারতীয় মহিলা যিনি অ্যান্টার্কটিকা অভিযানে গিয়েছিলেন

ভারত সরকার সুদীপ্তা সেনগুপ্তকে আন্টার্কটিকা পুরস্কার ও ন্যাশানাল মিনারেল পুরস্কারের দ্বারা সম্মানিত করেছেন। এছাড়া গবেষণার কাজের জন্য ভাটনগর পুরস্কারেও ভূষিত হয়েছেন।

-লিলি চক্রবর্তী
তথ্য : উইকিপিডিয়া,বঙ্গদর্শন (শ্রেয়ণ)

Avik mondal

Avik mondal

Related post

করোনাকে না করো

ভাইরাসের কবলে আজ সারা বিশ্ব,গৃহবন্দী বিশ্ববাসী।বন্ধ দ্বার খুলতে তাই নিজেদের সুরক্ষিত রাখুন,হাত ধুয়ে নেমে পড়ুন এই ভাইরাস দমনে।