১৫ বছর বয়সে যোগ দিয়েছিলেন স্বাধীনতা সংগ্রামে,প্রয়াত বিপ্লবী চুনীলাল সিংহরায়

১৫ বছর বয়সে যোগ দিয়েছিলেন স্বাধীনতা সংগ্রামে,প্রয়াত বিপ্লবী চুনীলাল সিংহরায়

গতকাল স্বাধীনতা সংগ্রামী চুনীলাল সিংহরায় হুগলির হরিপালের বাসভবনে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করলেন | তাঁর বয়স হয়েছিল ৯৩ বছর | দীর্ঘদিন ধরেই তিনি বার্ধক্যজনিত সমস্যায় ভুগছিলেন |

ব্রিটিশ শাসন তখন মধ্যগগনে | সামান্য সন্দেহ হলেই চলছে ধরপাকড় | বন্দি করা হচ্ছে জেলে | বাংলার বিপ্লবীদের উপর চলছে প্রচন্ড অত্যাচার | তখন চুনীলাল সিংহরায়ের বয়স মাত্র ১৫ বছর | সেই বয়সেই তিনি যোগ দিয়েছিলেন স্বাধীনতা সংগ্রামে | এর কিছুদিন পরেই শুরু হল ভারত ছাড়ো আন্দোলন | সেই আন্দোলনে যোগ দিয়ে গ্রেফতার হলেন তিনি | বেশ কিছু বছর কাটিয়েছিলেন জেলে | এমনকি জেল থেকে ছাড়া পাওয়ার পরেও বেশ কিছু মাস তিনি গৃহবন্দিও ছিলেন | জেলে থাকার সময়ই তাঁর সাথে ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক তৈরী হয় প্রফুল্ল চন্দ্র সেনের সঙ্গে | প্রফুল্ল চন্দ্র সেন পরবর্তীকালে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী হয়েছিলেন |

আরো পড়ুন:  ভারত ছাড়ো আন্দোলনের সূচনা থেকে কাঙ্ক্ষিত স্বাধীনতা সবই এসেছিল আগস্ট মাসেই

চুনীলাল সিংহরায় মহাশয়ের পৈতৃক বাড়ী হুগলী জেলার নয়ানগর গ্রামে। পরে হরিপালে বাড়ী করে সপরিবারে থাকতেন। দেশ স্বাধীন হওয়ার পর শিক্ষকতার পাশাপাশি বিভিন্ন সামাজিক কর্মকাণ্ডেও জড়িয়ে ছিলেন তিনি | অকাতরে দান করে গিয়েছেন রামকৃষ্ণ মিশনকে | সাধারণ মানুষের বিপদে সবসময় তাদের পাশে থাকার চেষ্টা করেছেন | ১৯৭২ সালে ভারত সরকার তাকে তাম্রপত্র দিয়ে ভূষিত করে | গতবছর পাঁচজন স্বাধীনতা সংগ্রামী চুনীলাল সিংহরায়, সুধীন্দ্রচন্দ্র মৈত্র, পূর্ণেন্দুপ্রসাদ ভট্টাচার্য , নেপালরঞ্জন ঘোষ এবং কার্তিকচন্দ্র দত্তকে রাষ্ট্রপতি ভবনে সম্মানিত করেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। তাঁর আত্মার শান্তি কামনা করি |

আরো পড়ুন:  হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত হলেন রাজনীতির জগতের ছোড়দা সোমেন মিত্র
বাংলা আমার প্রাণ

বাংলা আমার প্রাণ

"বাংলা আমার প্রাণ" বাংলা ও বাঙালির রীতিনীতি,বিপ্লবকথা,লোকাচার,শিল্প ও যাবতীয় সব কিছুর তথ্য প্রকাশ করে।বাংলা ভাষায় বাংলার কথা বলে "বাংলা আমার প্রাণ"। সকল খবর ও তথ্য আপনাদের কেমন লাগছে,তা আপনাদের কতোটা মন ছুঁতে পারছে তা জানতে আমরা আগ্রহী।যাতে আগামী দিনে আপনাদের আরো তথ্য উপহার দিতে পারি। আপনাদের মতামত ওয়েবসাইটে প্রকাশ করুন,আরো এগিয়ে যাওয়ার পথে এটিই আমাদের পাথেয়। বিন্দু বিন্দুতে সিন্ধু গড়ে ওঠে।আর তাই আজ আপনাদের ভালোবাসা সহযোগিতা ও অনুপ্রেরণায় আমরা এক বৃহৎ পরিবার।এখনো বহু পথ চলা বাকি তাই আপনাদের সাধ্য ও বিবেচনা অনুযায়ী অনুদান দিয়ে এই পেজের পাশে থাকুন। আমাদের পেজে প্রকাশিত সকল তথ্য আমরা একে একে নিয়ে আসছি আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে ভিডিও আকারে।দয়া করে আমাদের পেজ ও ওয়েবসাইট থেকে প্রকাশিত কোনো তথ্য বা লেখা নিয়ে কোনো ভিডিও বানাবেন না।যদি ইতিমধ্যে তা করে থাকেন তবে তা অবিলম্বে মুছে ফেলুন। আমাদের সকল কাজ DMCA কর্তৃক সংরক্ষিত তাই এ সকল তথ্যাদির পুনর্ব্যবহার বেআইনি ও কঠোর পদক্ষেপ সাপেক্ষ।ধন্যবাদ।

Related post

করোনাকে না করো

ভাইরাসের কবলে আজ সারা বিশ্ব,গৃহবন্দী বিশ্ববাসী।বন্ধ দ্বার খুলতে তাই নিজেদের সুরক্ষিত রাখুন,হাত ধুয়ে নেমে পড়ুন এই ভাইরাস দমনে।