আচার্য প্রফুল্লচন্দ্র রায়কে জন্মদিনে শ্রদ্ধা জানাতে বেঙ্গল কেমিক্যালস নিয়ে এল স্যানিটাইজার বেনস্যানি

আচার্য প্রফুল্লচন্দ্র রায়কে জন্মদিনে শ্রদ্ধা জানাতে বেঙ্গল কেমিক্যালস নিয়ে এল স্যানিটাইজার বেনস্যানি

পৃথিবী বিখ্যাত রসায়নবিদ হয়েও আচার্য প্রফুল্লচন্দ্র রায় হয়েছিলেন ব্যবসাদার, বাঙালিদের ব্যবসা-বাণিজ্যে প্রেরণা যোগাতে, স্বাবলম্বী করতে, বাঙালির মর্যাদা রক্ষার্থে। গবেষণাগারে ব্যস্ত থেকেও স্বদেশী ভাবধারায়, এ দেশে ওষুধ শিল্পের অগ্রদূত, বেঙ্গল কেমিক্যাল গড়ে তুলে দেখিয়ে দিলেন এটাও সম্ভব। প্রতিষ্ঠা করেছেন বেঙ্গল পটারি, বেঙ্গল এনামেল। শিল্পপতি ও ব্যবসায়ী হয়েও সন্ন্যাসী আত্মভোলা মানুষটি আয়ের শেষ কড়িটিও ব্যয় করেছেন জনকল্যাণে।

মাত্র ৭০০ টাকা পুঁজি নিয়ে ১৮৯৩ সালে আচার্য্য প্রফুল্ল চন্দ্র রায় নিজের ল্যাবরেটরিতে একটি ওষুধ তৈরির কোম্পানী চালু করেছিলেন। সেটি ১৯০১ সালে বেঙ্গল কেমিক্যাল এণ্ড ফার্মাসিউটিক্যাল ওয়ার্কস লিমিটেড হিসেবে পরিচিত হয়। এটিই প্রথম ভারতীয় কোম্পানি যেখানে বিভিন্ন কেমিক্যাল, ওষুধ এবং বাড়িতে ব্যবহার করার নানা সামগ্রী তৈরি হতো। এগুলো বেশীরভাগই তৈরী হত স্বদেশী পদ্ধতিতে এবং দেশজ মাল-মশলা ব্যবহার করে। ১৯২৬ সালে বেঙ্গল কেমিক্যাল ১৪০০ দেশীয় শ্রমিকের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করে। বেঙ্গল কেমিক্যালের তৈরি ওষুধের দাম কম হওয়ায় সরকারী হাসপাতালগুলোতে একসময় ছিল ব্যাপক চল । কমিশন নেই তাই একালের ডাক্তার বাবুরা ভুলেও আর ঐসব ওষুধ লেখেন না ।আজও বেঙ্গলের ল্যাম্প ব্রান্ড ফিনাইল ও ন্যাপথলিনের কোন বিকল্প নেই !

আরো পড়ুন:  মাত্র ৭০০ টাকা পুঁজি নিয়ে প্রফুল্লচন্দ্র রায় চালু করেছিলেন ওষুধ তৈরীর প্রথম ভারতীয় কোম্পানী

বেঙ্গল কেমিক্যালের বহু সামগ্রী এখনো বাজারে চালু আছে যদিও বেসিক ওষুধপত্র এবং কেমিক্যাল বানানোতেই এখন গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। প্রসাধন সামগ্রীর মধ্যে অগুরু এসেন্স, ক্যান্থেরাইডিন তেল অনেকের প্রিয়। আজও বদ হজমে অনেকে অ্যাকোয়া টাইকোটিসের খোঁজ করেন,তবে বাজারে পাওয়া যায়না বললেই চলে !

আরো পড়ুন:  ব্রিটিশদের রক্তচক্ষুকে উপেক্ষা করে লিখেছিলেন "আনন্দমঠ"

২ অগাস্ট ছিল প্রফুল্লচন্দ্র রায়ের ১৫৯ তম জন্মদিন।তাকে সম্মান জানাতে ২ আগস্ট বাজারে এল বেঙ্গল কেমিক্যালসের নতুন স্যানিটাইজার – নাম বেনস্যানি (BENSANI) | চারিদিকে করোনার প্রকোপ ক্রমশ বাড়ছে আর এই সময় সুরক্ষিত থাকতে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের বিকল্প নেই | দৈনন্দিন জীবনে সর্বক্ষণের সঙ্গী হয়ে উঠেছে স্যানিটাইজার | বাজারে বহু স্যানিটাইজার থাকলেও তা কতটা জীবাণুরোধক,তা নিয়ে সংশয় থেকেই যায় | এর পাশাপাশি অনেকেই শুরু করেছেন কালোবাজারি ও নকল স্যানিটাইজারের রমরমা ব্যবসা। সেই সংশয় থেকে মুক্ত করতেই নতুন স্যানিটাইজার বাজারে আনল বেঙ্গল কেমিক্যালস | অ্যালকোহলযুক্ত স্যানিটাইজার বেনস্যানি বর্তমানে ২০০ মিলিলিটার, ৫০০ মিলিলিটার ও ৫ লিটারের বড় বোতলে পাওয়া যাবে | দামও রাখা হয়েছে সাধারণ মানুষের সাধ্যের মধ্যে | বাজারেও বর্তমানে পাওয়া যাচ্ছে এই স্যানিটাইজার | বেনস্যানির প্রস্তুতি থেকে শুরু করে উৎপাদন, প্যাকেজিং সবটাই করেছে বেঙ্গল কেমিক্যালস |

আরো পড়ুন:  রাতের অন্ধকারে গ্রামে গ্রামে ঘুরে নীলবিদ্রোহের জন্যে কৃষকদের সংগঠিত করতেন দিগম্বর বিশ্বাস ও বিষ্ণুচরণ বিশ্বাস
বাংলা আমার প্রাণ

বাংলা আমার প্রাণ

"বাংলা আমার প্রাণ" বাংলা ও বাঙালির রীতিনীতি,বিপ্লবকথা,লোকাচার,শিল্প ও যাবতীয় সব কিছুর তথ্য প্রকাশ করে।বাংলা ভাষায় বাংলার কথা বলে "বাংলা আমার প্রাণ"। সকল খবর ও তথ্য আপনাদের কেমন লাগছে,তা আপনাদের কতোটা মন ছুঁতে পারছে তা জানতে আমরা আগ্রহী।যাতে আগামী দিনে আপনাদের আরো তথ্য উপহার দিতে পারি। আপনাদের মতামত ওয়েবসাইটে প্রকাশ করুন,আরো এগিয়ে যাওয়ার পথে এটিই আমাদের পাথেয়। বিন্দু বিন্দুতে সিন্ধু গড়ে ওঠে।আর তাই আজ আপনাদের ভালোবাসা সহযোগিতা ও অনুপ্রেরণায় আমরা এক বৃহৎ পরিবার।এখনো বহু পথ চলা বাকি তাই আপনাদের সাধ্য ও বিবেচনা অনুযায়ী অনুদান দিয়ে এই পেজের পাশে থাকুন। আমাদের পেজে প্রকাশিত সকল তথ্য আমরা একে একে নিয়ে আসছি আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে ভিডিও আকারে।দয়া করে আমাদের পেজ ও ওয়েবসাইট থেকে প্রকাশিত কোনো তথ্য বা লেখা নিয়ে কোনো ভিডিও বানাবেন না।যদি ইতিমধ্যে তা করে থাকেন তবে তা অবিলম্বে মুছে ফেলুন। আমাদের সকল কাজ DMCA কর্তৃক সংরক্ষিত তাই এ সকল তথ্যাদির পুনর্ব্যবহার বেআইনি ও কঠোর পদক্ষেপ সাপেক্ষ।ধন্যবাদ।

Related post

করোনাকে না করো

ভাইরাসের কবলে আজ সারা বিশ্ব,গৃহবন্দী বিশ্ববাসী।বন্ধ দ্বার খুলতে তাই নিজেদের সুরক্ষিত রাখুন,হাত ধুয়ে নেমে পড়ুন এই ভাইরাস দমনে।